শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১ ১৪৩১   ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সর্বশেষ:
সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রে ব্যয়বহুল সফরে ২৬ ব্যাংক এমডি যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ সাবেক সেনাপ্রধান ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের নতুন নিষেধাজ্ঞা দিনের বেলায় মরুভূমির চেয়েও উত্তপ্ত চাঁদ ডেঙ্গুতে একদিনে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ২৩২৭ ৬ কংগ্রেসম্যানের চিঠির সত্যতা চ্যালেঞ্জ করে ২৬৭ প্রবাসী বাংলাদেশি অক্টোবরের মধ্যেই ‘আন্দোলনের ফসল’ ঘরে তুলতে চায় বিএনপি শর্তসাপেক্ষে নিউইয়র্কে মসজিদে আজানের অনুমতি বাংলাদেশ থেকে বিনা খরচে মালয়েশিয়া গেলেন ৩১ কর্মী খেলাপি ঋণ কমাতে কঠোর নির্দেশ জার্মানে পাঁচ বছর বাস করলেই পাওয়া যাবে নাগরিকত্ব বিএনপি-জাপা বৈঠক সিঙ্গাপুরে বাইডেন প্রশাসনকে হাসিনার কড়া বার্তা এবার হাসিনার পাশে রাশিয়া বঙ্গ সম্মেলনের ইতিহাসে ন্যাক্কারজনক ঘটনা স্টুডেন্ট লোন মওকুফ প্রস্তাব বাতিল বাংলাদেশিদের ওপর উপর্যুপরি হামলা যুক্তরাষ্ট্রের উচিত আগে নিজ দেশে মানবাধিকার রক্ষা করা: শেখ হাসিনা তামিমের অবসর অভিযোগের তীর পাপনের দিকে নিউইয়র্কে এখন চোরের উপদ্রুব যুক্তরাষ্ট্রের ২৪৭তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে হাতিরঝিলের ক্ষতি হবেই ইসরায়েল-ফিলিস্তিন যুদ্ধবিরতি, পাঁচ দিনে নিহত ৩৫ যুক্তরাষ্ট্রে একের পর এক বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটছে বাখমুত থেকে পিছু হটেছে সেনারা, স্বীকার করল রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণ ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ সুপার সাইক্লোন হবে না, দাবি আবহাওয়া অধিদপ্তরের সুদানে যুদ্ধে সাড়ে ৪ লাখ শিশু বাস্তুচ্যুত : জাতিসংঘ পারস্য উপসাগরে সামরিক উপস্থিতি বাড়াচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র দক্ষিণ এশিয়ায় খেলাপি ঋণে দ্বিতীয় বাংলাদেশ বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংকটে সারা দেশে ভোগান্তি রুশ হামলা সামলে ফের বিদ্যুৎ রপ্তানি করতে যাচ্ছে ইউক্রেন রিজার্ভ সংকট, খাদ্যমূল্য বৃদ্ধির জন্য সরকারের দুর্বল নীতিও দায়ী পূজার ‘জিন’ একা দেখতে পারলেই মিলবে লাখ টাকা! সিরিয়ায় আর্টিলারি হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল বাইডেন না দাঁড়ালে প্রার্থী হবেন কে নাইজেরিয়ায় ৭৪ জনকে গুলি করে হত্যা ভারতে বাড়ছে করোনা, বিধিনিষেধ জারি তিন রাজ্যে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন লুলা যে কোনো দিন খুলবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল দেশে করোনার নতুন ধরন, সতর্কতা বিএনপির সব পদ থেকে বহিষ্কার আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করবো: মাহিয়া মাহি মর্মান্তিক, মেয়েটিকে ১২ কিলোমিটার টেনে নিয়ে গেল ঘাতক গাড়ি! স্ট্যামফোর্ড-আশাসহ ৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বর্ষবরণে বায়ু-শব্দদূষণ জনস্বাস্থ্যে ধাক্কা কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
১২

দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ রফতানি গন্তব্য হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধান রফতানি গন্তব্য হিসেবে চীনকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ২২ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো এ স্থান বদল ঘটছে। গতকাল এক যৌথ প্রতিবেদনে এ পূর্বাভাস দিয়েছে দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং এসএমই ও স্টার্টআপ মন্ত্রণালয়। 

চলতি বছরে মে পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৫ হাজার ৩৩০ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি করেছে সিউল। অন্যদিকে চীনে ৫ হাজার ২৬৯ কোটি ডলারের রফতানি করেছে, যা যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে ৬১ কোটি ডলারের চেয়ে কম। 

২০২৩ সাল থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার বড় কোম্পানিগুলো রফতানির ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন এসেছে। এমনকি ২০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ছোট ও মাঝারি খাতের কোম্পানিগুলোর প্রধান রফতানি গন্তব্য বদলে গেছে।

যদি এ প্রবণতা অব্যাহত থাকে, তবে ২০০২ সালের পর প্রথমবারের মতো দক্ষিণ কোরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রে রফতানি চীনের চেয়ে বেশি হবে। গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে মোট রফতানি আয় ছিল ১১ হাজার ৫৭১ কোটি ডলার, যা চীনের ১২ হাজার ৪৮১ কোটি ডলারের চেয়ে ৯১০ কোটি ডলার কম।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনে রফতানির মধ্যে ব্যবধান ১৯ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম, ২০০৪ সালে ব্যবধান ছিল ৬৯১ কোটি ডলার।

এ বিষয়ে চায়না ইকোনমিক অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউটের প্রধান জিওন বাইং-এসইও বলেন, ‘সেমিকন্ডাক্টর ও ডিসপ্লের মতো মধ্যবর্তী পণ্যের রফতানি বাড়লে বছরের শেষ নাগাদ কোরিয়ার বৃহত্তম রফতানি বাজার হিসেবে অবস্থান পুনরুদ্ধার করতে পারবে চীন।’

মোবাইল ও সেকেন্ডারি ব্যাটারিনির্ভর যুক্তরাষ্ট্রমুখী রফতানি গত বছর ৫ দশমিক ৪ শতাংশ বেড়েছে। ফলে যুক্তরাষ্ট্র ২০০৫ সাল থেকে প্রথমবারের মতো কোরিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম রফতানি গন্তব্য হিসেবে তার অবস্থান পুনরুদ্ধার করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে রফতানি ২০২০ সালের ৭ হাজার ৪১১ কোটি ডলার থেকে পরের বছর ৯ হাজার ৫৯০ কোটি ডলারে উন্নীত হয়েছিল। এরপর ২০২২ সালে প্রথমবারের মতো ১০০ বিলিয়ন বা ১০ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যায়, যা গত বছর আরো বেড়েছে।

বিপরীতে দক্ষিণ কোরিয়া থেকে চীনে রফতানি পরপর দুই বছর কমেছে। ২০২১ সালের রেকর্ড সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৯১ কোটি ডলার থেকে পরের বছর ১৫ হাজার ৫৭৯ কোটি ডলারে নেমে আসে। ২০২৩ সালে দক্ষিণ কোরিয়া দেশটিতে ১২ হাজার ৪৮১ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি করে। মূলত চীনে উৎপাদন খাতের মন্দার কারণে প্রভাবিত হয় আমদানি।

২০১৬-২৩ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কোরিয়ান বৃহৎ কোম্পানিগুলোর রফতানি টানা সাত বছর ধরে বেড়েছে। তিন বছরে ৬৪ দশমিক ৯ শতাংশ বেড়ে ২০২০ সালে ৪ হাজার ৮২২ কোটি ডলার থেকে গত বছর প্রায় ৮ হাজার কোটি ডলার হয়েছে।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর